মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে পরীক্ষায় আসার মতো কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র । ১৪৯২ সালে ইতালির নাবিক কলম্বাস স্পেনের রাণী ইসাবেলার অর্থায়নে আটলান্টিক মহাসাগর সমুদ্র অভিযানে বের হয়। কলম্বাসের জাহাজটির নাম ছিল- শান্তা মারিয়া। কলম্বাস মূলত বাহমা দ্বীপে পৌছান। ভুলক্রমে এই অঞ্চলের নাম প্রদান করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ বা পশ্চিম ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জ। ১৪৯৩ সালে কলম্বাস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পৌছান এবং এই অঞ্চলের জনগনদের নাম দেন রেড ইন্ডিয়ান। ১৪৯৭ সালে আমেরিগো ভেস পুচি উপলব্ধি করেন এটি ওয়েস্ট ইন্ডিজ নয়। তখন তার নাম অনুসারে এই মহাদেশটির নাম রাখা হয় আমেরিকা মহাদেশ।

 

 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি পোতাশ্রয়। ১৭৭৩ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে “চা আইন” প্রণয়ন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের জনগন এই আইনের বিরোধীতা করে ১৭৭৩ সালের ১৬ই ডিসেম্বর এর আয়োজন করে। এর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তারা যুক্তরাজ্যের চা সমূহ সমুদ্রে ভাসিয়ে দেয়। ফলে যুক্তরাষ্ট্রের জনগনের উপর ব্যাপক নির্যাতন শুরু করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন। এর প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের জনগন ব্রিটেনের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করে।

এই আন্দোলন ১৭৭৫ সালে স্বাধীনতা আন্দোলনের রুপ নেয়। যার কারনে বলা হয়ে থাকে। ১৭৭৬ সালের ৪ জুলাই “ইন্ডেপেন্ডেন্স” হল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা ঘোষনা করেন থমাস। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতার মহানায়ক ছিলেন জর্জ ওয়াশিংটন। ভার্সাইল চুক্তি বা প্যারিস চুক্তির মাধ্যমে ১৭৮৩ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বাধীনতা অর্জন করে। এই যুদ্ধে মার্কিন যুক্ত রাষ্ট্রকে সহযোগীতা করেন ফ্রান্স, নেদারল্যান্ড ও স্পেন।

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে আরো কিছু তথ্য

যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান প্রণয়ন করা হয় ১৭৮৭ সালে। সংবিধান কার্যকর হয় ২ বছর পরে অর্থাৎ ১৭৮৯ সালে। পৃথিবীর সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত ও ছোট প্রাচীন সংবিধান হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান এই পর্যন্ত ২৭ বার সংশোধন করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম ১০টি সংবিধান সংশোধনী ছিল নাগরিক অধিকার সম্পর্কিত। এজন্য এই দশটি সংশোধনীকে বলা হয়ে থাকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ধারা বা অনুচ্ছেদ হচ্ছে সর্বমোট ১০০টি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য

মার্কিন যুক্ত রাষ্ট্রের পতাকায় যতগুলো তারকা চিহ্ন থাকবে, ততগুলো অঙ্গরাজ্য থাকবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পতাকায় তারকা চিহ্ন আছে ৫০টি। ১টি ফেডারেল জেলা রয়েছে। ১৮০৩ সালে ফ্রান্সের নিকট থেকে লুইসিয়ানা অঙ্গরাজ্যটি ক্রয় করা হয়। ১৮৬৭ সালে রাশিয়ার নিকট থেকে আল-আকসা অঙ্গরাজ্যটি ক্রয় করে। যুক্তরাষ্ট্রের সর্বশেষ বা ৫০তম অঙ্গরাজ্য হচ্ছে হাউয়াই দ্বীপপুঞ্জ। এটি প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন:

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আইন সভার নাম হচ্ছে কংগ্রেস। এটি দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট। উচ্চ কক্ষ হচ্ছে- সিনেট। আর নিম্ন কক্ষ হচ্ছে প্রতিনিধি সভা।। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান পার্টি হচ্ছে দুইটা।

১) রিপাবলিকান পার্টি। যার প্রতীক হচ্ছে হাতি। (ডোনাল্ড ট্রাম্প)।
২) ডেমোকেটিভ পার্টি। যার প্রতীক হচ্ছে গাধা। (জো বাইডেন)।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র । প্রকৃত নির্বাচনে পরাজয় লাভ করলে তাকে  বলে। তবে নির্বাচনের জরিপে জয়লাভ করতে হবে। অর্থাৎ, নির্বাচনের জরিপে জয়লাভ করে, তারপর প্রকৃত নির্বাচনে পরাজিত হলে তাকে বলে। ১৯৮২ সালে এর ক্ষেত্রে এই ধরণের ঘটনা ঘটে।