ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে আয় করুন খুব সহজে

বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে ইনকাম করার অন্যতম জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হচ্ছে ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল। ফেসবুক কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের টাকা ইনকাম করার এই সুবর্ণ সুযোগ করে দিয়েছে। প্রায় সকল ধরনের অনলাইন প্রকাশনার জন্য ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল সুবিধাটি প্রদান করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

আপনারা এই আর্টিকেলটি থেকে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল কি ও কিভাবে কাজ করে সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। এছাড়াও কিভাবে ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে টাকা ইনকাম করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক!

 

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল বিষয়টা কি

চলুন আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল বিষয়টা কি সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই। বর্তমান সময়ে ওয়েবসাইটের জন্য ফাস্ট লোডিং টাইম অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। যারা মোবাইল ব্যবহার করেন তাদের ক্ষেত্রেও বিষয়টি প্রযোজ্য হয়ে থাকে। ওয়েবসাইট লোডিং এর বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সিস্টেমটি নিয়ে এসেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের মাধ্যমে যেকোন ওয়েবসাইট খুব দ্রুত লোড হয়ে থাকে। জেনে রাখা ভালো, ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল হলো মূলত একটি এইচটিএমএল ডকুমেন্ট। ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল একটি কাস্টম আর্টিকেল ফরম্যাট ফলো করে থাকে। এটি ফেসবুক মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল ডিভাইসে অনেক দ্রুত গতিতে লোড হয়ে যায়।

যারা আর্টিকেল নিয়ে কাজ করে তারা যাতে মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য তাদের আর্টিকেলগুলো অপটিমাইজ করতে পারে, সে কথাটি বিবেচনা করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল সিস্টেমটি তৈরি করেছে। ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেটিং করার পর যখন কোনো আর্টিকেল শেয়ার করা হয়, তখন উক্ত আর্টিকেল ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলে রুপান্তরিত হয়ে যায়। অর্থাৎ অনেক দ্রুত লোড হয়ে যায়। এই ফিচারটিকে জনপ্রিয় করতে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে ইনকাম করার সুযোগ করে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

 

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর সুবিধা কি জানুন

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর সুবিধা অনেক। এবার আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর সুবিধা সম্পর্কে জানবো।

ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর সুবিধা সমূহ:

  1. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর ক্লিক রেট অন্য সাইটের তুলনায় অপেক্ষাকৃত ২০% বেশি হয়ে থাকে।
  2. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর মধ্যে ইন্টারেক্টিভ অনেক ফিচার রয়েছে। যেমনঃ ট্যাপ টু জুম ইমেজ গ্যালারি, ভিডিও অটোপ্লে প্রভৃতি।
  3. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের নিচে থাকা ইমেইল সাবস্ক্রিপশন ব্যবহার করে ইমেইল লিস্ট তৈরির সুযোগ রয়েছে।
  4. এর মাধ্যমে আপনি কাস্টম থিম দ্বারা কনটেন্ট ব্র্যান্ডেড করার সুবিধা পাবেন।
  5. তবে সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো ফেসবুক অ্যাড প্ল্যাটফর্ম থেকে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের মাধ্যমে ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

সুতরাং বলা যায় যে, ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনি নানা রকম সুযোগ সুবিধা পাবেন। আপনি যেমন ইনকাম করতে পারবেন তেমন আপনার ওয়েব সাইটে ভালো স্পিড পাবেন। আর এর ফলে আপনি আপনার সাইটে অনেক ভিজিটর পাবেন।

 

ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর অসুবিধা কি জানুন

ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর যেমন অনেক সুবিধা রয়েছে তেমনি কিছু অসুবিধাও রয়েছে। এবার আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের অসুবিধা গুলো সম্পর্কে জানবো।

ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর অসুবিধাগুলো:

  1. ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের এড রেভিনিউ থেকে ৩০% কেটে নেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।
  2. ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল শুধুমাত্র ফেসবুক মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে ব্যবহার করা যায়, এটা ছাড়া ব্যবহার করা যায় না।
  3. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেটাপ করতে হলে আপনার কিছুটা টেকনিক্যাল দক্ষতার প্রয়োজন হবে, টেকনিক্যাল দক্ষতা ছাড়া আপনি ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেটাপ করতে পারবেন না।
  4. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে এড কতগুলো দিবে সেটা ফেসবুক কর্তৃপক্ষ লিমিট করে দিয়ে থাকে।
  5. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর আরেকটি অসুবিধা হলো এটি অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা যায়না। এটা শুধু ফেসবুক অ্যাপের মধ্যেই শেয়ার করতে হয়।

 

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে আয় করার নিয়ম

এবার আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে ইনকাম করার নিয়ম সম্পর্কে জানবো। ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে যে আয় করা যায়, সে সম্পর্কে অনেক মানুষই জানে না। ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল প্ল্যাটফর্মে যোগ দিতে আপনার প্রাথমিকভাবে যা প্রয়োজন হবে তা হলো:

  • এডমিন বা এডিটর রোল আছে এমন একটি ফেসবুক ও পেজ।
  • কনটেন্ট আছে এমন একটি ওয়েবসাইট।

এবার আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল চালু করা এবং তা থেকে আয় করা সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সম্পর্কে জেনে নিবো।

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সাইন-আপ করার নিয়ম:

এবার আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে সাইন আপ করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিবো। ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে সাইন আপ করা অনেক সহজ। মূলত ফেসবুক ক্রিয়েটর স্টুডিও এর মনেটাইজেশন ট্যাব থেকে সাইন আপ করা যাবে ফেসবুকের এই ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সিস্টেমটি থেকে। ফেসবুক ক্রিয়েটর স্টুডিও এর উক্ত পেজে প্রবেশ করা যাবে এই লিংক থেকে:

যদি আপনার কাঙ্ক্ষিত সিলেক্ট করার পর  অপশনের পাশে ব্লু চেকমার্ক থাকবে। যদি ব্লু চিহ্ন থাকে তবে বুঝে নিবেন আপনার Website টি মনেটাইজ করা যাবে। এখান থেকে সাইন আপ করার পর পাবলিশিং সেকশনে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল নামে একটি নতুন দেখতে পাবেন। এর ক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইট এর ধরন ও একটিভিটি সম্পর্কে জিজ্ঞেস করবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

 

ফেসবুক পেজ এ যেভাবে আপনার সাইট কানেক্ট করবেন জানুন

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে কাজ শুরু করার অন্যতম একটি ধাপ হচ্ছে আপনার ফেসবুক পেজের সাথে আপনার সাইটের কানেক্ট করা। প্রথমে পাবলিসিং এর আন্ডারে থাকা ইনসট্যান্ট আর্টিকেলের সেকশনে প্রবেশ করে সংগ্রহ করে নিন। থেকে অপশনটি পাবেন।

মূলত এই পেজ আইডি ব্যবহার করেই ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজ কানেক্ট করতে হবে আপনাকে। এর পরের কাজটি হলো, আপনার ওয়েবসাইট যদি ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা তৈরী হয়ে থাকে, তাহলে আগে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল প্লাগিন ইন্সটল করে নিন। প্লাগিনটি ইন্সটলের পর পেজ আইডি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিনে প্রবেশ করে এন্টার প্রেস করে নিন। পেজ আইডিটি প্রদানের পর ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেটিংসের পর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া শুরু হবে। তারপর ওয়েবসাইটে কনফিগারেশন সম্পন্ন করে ফেসবুক পেজে ফেরত যান এবং বাটনে ক্লিক করে এগিয়ে যান।

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল কাস্টমাইজেশন কিভাবে করবেন?

এবার আমরা ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের কাস্টমাইজেশন সম্পর্কে জেনে নিবো। ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের কনটেন্ট প্রদর্শনের স্টাইল কাস্টমাইজ করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেকশনে প্রবেশ করে  এ প্রবেশ করতে হবে। এরপর আপনাকে কোম্পানি ব্র্যান্ডিং ও আর্টিকেল স্টাইল কাস্টমাইজ করতে হবে। একটি কথা মনে রাখবেন প্রিভিউ টুল ব্যবহার করে নতুন স্টাইল সেভ এর আগে পরীক্ষা করে নিবেন না হলে পরে সমস্যার মধ্যে পড়তে পারেন।

আর্টিকেল সাবমিশন কিভাবে করবেন?

ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে ব্র্যান্ডিং এর কাজ শেষ হলে এবার ফেসবুক দশটি স্যাম্পল আর্টিকেল খুঁজবে রিভিউ করার জন্য। মনে রাখবেন এই এপ্রুবাল প্রক্রিয়ার ফাইনাল ধাপ হচ্ছে এটি। আপনার ব্লগে কমপক্ষে দশটি পাবলিশ করা পোস্ট থাকতে হবে। না হলে আপনি ফেসবুক ইনসট্যান্ট আর্টিকেল এ এপ্রুভাল পাবেন না। আপনার ব্লগে যদি কমপক্ষে দশটি পোস্ট না থাকে, তবে আপনি ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের আবেদন করতে পারবেন না। আবেদন করার সময় আপনাকে আপনার সাইটের সেরা আর্টিকেল গুলো নির্বাচন করতে হবে।

 

এবার জানুন ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল মনিটাইজেশন সম্পর্কে

এবার আমরা ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল মনিটাইজেশন সম্পর্কে জানবো। এখানে উল্লেখিত সকল প্রক্রিয়ার স্টেপ গুলো শেষ হওয়ার পর তবে আসবে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল থেকে আয় করার সুযোগ। ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেটিং করার পর তবেই মনিটাইজেশন করার সুযোগ আসবে।

আপনার কাঙ্ক্ষিত মনিটাইজেশন ট্যাবটি খুঁজে পাবেন ক্রিয়েটর স্টুডিও থেকে। ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল অপশনে ক্লিক করে মনেটাইজেশনের জন্য আপনাকে আবেদন করতে হবে। মনে রাখবেন, এপ্লাই করার কিছুদিন পর আপনার আবেদনটি এপ্রুভ করা হবে। তবে একটা কথা অবশ্যই মনে রাখবেন সেটা হচ্ছে আপনার সাইটটি অবশ্যই ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের সকল রুলস মানতে হবে।

আপনার ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল যদি এপ্রুভ হয়ে যায়, তারপর আপনার পাবলিশ করা পোস্ট অটোমেটিক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলে পরিণত হয়ে যাবে। আপনি ফেসবুকে আপনার আর্টিকেলের যেকোন পোস্ট শেয়ার করার পর লিংক থাম্বনেইলে একটি ঠাণ্ডার আইকন নামক একটি আইকন দেখতে পাবেন। এই থান্ডার আইকনটি দ্বারা ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলকে বোঝানো হয়ে থাকে। আমাদের ব্লগের সকল পাঠকের কথা মাথায় রেখে এই আর্টিকেলটিতে সহজভাবে ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সেটাপ সম্পর্কে বর্ণনা করা হয়েছে।